'আমি তো ভালা না, ভালা লইয়া থাইকো'

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিতঃ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ সময়ঃ রাত ১ঃ০০
'আমি তো ভালা না, ভালা লইয়া থাইকো'
'আমি তো ভালা না, ভালা লইয়া থাইকো'

 

প্রতিটি মানুষের হৃদয়ে গান বসবাস করে সে শিল্পী হোক কিংবা শ্রোতা। প্রতিটি মানুষ নির্জনতায় কিংবা নিজেদের সুখ-দুঃখ, আনন্দ-বেদনার প্রতিটি মুহূর্তে গুন গুন করে গান গেয়ে থাকে।

কিন্তু যে সমস্ত গান গেয়ে শিল্পীরা রাতারাতি তারকা বনে যায় সেই সমস্ত গানগুলির স্রষ্টা গীতিকার কিংবা সুরকার এরা সব সময় পর্দার আড়ালে নিরব হয়ে পড়ে থাকে। জনপ্রিয়তা কিংবা অর্থনৈতিক কোন দিক দিয়ে তারা লাভবান হয় না। অথচ গানের গভীরতা একমাত্র উপলব্ধি করতে পারেন তিনি, যিনি সেই গানটির লেখক এবং সুরকার। সম্প্রতি 'আমিতো ভালা না ভালা লইয়া থাইকো' শিরোনামের গানটি নিয়ে ইউটিউবে ঈগল মিউজিকের তৈরি একটি মিউজিক ভিডিও প্রকাশিত হলে। দর্শকদের মাঝে খুবই জনপ্রিয়তা পায় এই গানটি। গানটি গেয়েছেন কণ্ঠশিল্পী কামরুজ্জামান রাব্বি।ইতিমধ্যে গানটির ভিউয়ার্স প্রায় ৬ মিলিয়ন অতিক্রম করেছে। সম্প্রতি বার্তাজগৎ ২৪ ডটকম সে গানটির লেখক ও সুরকার মাহবুব শাহ্ কে মিডিয়ার সামনে তুলে ধরেছেন। মাহবুব শাহ্ নিজে বার্তা জগৎ২৪ ডটকমকে একটি সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। সেই সাক্ষাৎকারটির কিছু অংশ পাঠকদের উদ্দেশ্যে তুলে ধরা হলো:

 

বার্তাজগৎ২৪ডটকম : কেমন আছেন?

মাহবুব শাহ্ : এইতো আলহামদুলিল্লাহ ভালো আছি। আপনি কেমন আছেন?

 

বার্তাজগৎ২৪ডটকম : আমরা বার্তাজগত ২৪ ডটকম থেকে আসলাম আপনার সাথে একান্ত কিছু কথা বলতে, সম্প্রতি ইউটিউবে আপনার একটি গান খুবই জনপ্রিয়তা পেয়েছে গানটি গেয়েছেন কামরুজ্জামান রাব্বি। বলতে গেলে এই গানটির মাধ্যমে বর্তমান সময়ে রাব্বি টাইম লাইনে চলে এসেছে এই নিয়ে আপনার অনুভূতি কেমন?

 

মাহবুব শাহ্ : আলহামদুলিল্লাহ অবশ্যই ভালো লাগার বিষয়। এতো খুশির সংবাদ, রাব্বি প্রথম গাইছে, সে আসলো আমাকে বলল গানটি খুব সুন্দর, ভাই আমি গানটি একটু গাই, আমি বললাম গাও।

 

বার্তাজগৎ২৪ডটকম: রাব্বি আপনাদের বাসায় এসেছিল?

 

মাহবুব শাহ্ : আমাদের বাসায় বাৎসরিক অনুষ্ঠানের সময় আসছিল। আসলে মনের তাগিদে গান লেখা, লিখতে লিখতে ভালো লাগা, জানিনা কতটুকু মানুষের মনে ধরেছে, আশা করি আপনাদের দোয়ায় হয়তো এ পর্যন্ত আসছি। আপনারা দোয়া করবেন সামনে যাতে আরো ভালো কিছু হয়। তবে গান আমি কখনো বাণিজ্যিকভাবে লিখি নাই। বাণিজ্যিকভাবে কাউকে বলিও নাই, অনেকে অনেক ভাবে করেছে কখনো আমার অনুমতিও নেই নি।

 

বার্তাজগৎ২৪ডটকম: সম্প্রতি ঈগল মিউজিক আপনার একটি গান কভার করেছে, কামরুজ্জামান রাব্বি গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন, গানটি ইউটিউবে প্রকাশ করা হয়েছে। ঈগল মিউজিক কি আপনার কাছে অনুমতি নিয়েছে?

 

মাহবুব শাহ্ : আমার কাছ থেকে কোন কোম্পানি বা কোনো স্পন্সর অনুমতি নেয়নি।

 

বার্তাজগৎ২৪ডটকম: এই নিয়ে আপনার কোনো অভিযোগ নেই?

 

মাহবুব শাহ্ : যদি আইন অনুযায়ী কোন সংবিধান থাকে,আমার স্বপক্ষে যদি কোন সুবিধা থাকে অবশ্যই আমি নিব। আর অনুমতির ব্যাপার হচ্ছে আমি বাণিজ্যিকভাবে কখনো চিন্তাও করিনি।

 

বার্তাজগৎ২৪ডটকম : কিন্তু তারা তো আপনার গান বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহার করতেছে, এটাকে তো পাইরেসী বলা হয় আপনি কি জানেন?

 

মাহবুব শাহ্ : সেক্ষেত্রে আপনারা সাংবাদিকরা আছেন, আপনারা দেখবেন যেটা উত্তম সেটাই হওয়া উচিৎ।

 

বার্তাজগৎ২৪ডটকম : আপনি 'আমি তো ভালা না ভালা লইয়া থাইকো' গানটি কি ফোক গান হিসেবে লিখেছেন?

 

মাহবুব শাহ্ : হ্যাঁ এটা একটা ফোক গান হিসেবে লেখা হয়েছে। 

 

 

 বার্তাজগৎ২৪ডটকম : আপনার গান লেখার শুরু হয় কখন থেকে?

 

মাহবুব শাহ্ : ছোটবেলা থেকে যখন প্রাইমারি তে পড়তাম তখন কবিতা আকারে লিখতাম, মাধ্যমিক স্কুলে তেমনটি হয়নি। তবে কলেজ জীবনে আবার ভিন্ন কারণে ভাবের প্রবণতায় গান লেখা শুরু করি। এদিক থেকে ধরলে অনেক আগে থেকে গান লেখা শুরু হয়েছে। একটি গান শেষ করতে গিয়ে প্রায় চার বছর লেগেছে।

 

বার্তাজগৎ২৪ডটকম : কোন গানটি চার বছর লেগেছে?

 

মাহবুব শাহ্ : এইতো 'আমি তো ভালা না ভালা লইয়া থাইকো' গানটা।


বার্তাজগৎ২৪ডটকম : চার বছর!

 

মাহবুব শাহ্ : আসলে মানুষ যে ভালো থাকেনা, সে কথা কেউ স্বীকার করতে চায় না। তাই আমিই প্রথম স্বীকার করলাম যে আমি ভালো না, তোমরা ভালা লইয়া থাইকো। মনের ভাবনা অনেক আগের। হয়তো মানুষ এখন বুঝতে পারছে। ভালো না শুনতে শুনতে আমারও আর ভাল লাগে নাই এক সময়।

 

বার্তাজগৎ২৪ডটকম : আপনার লেখা গান আজ মানুষের মুখে মুখে, কিন্তু আপনি কখনও মিডিয়ার সামনে আসেননি কেন? নিজেকে নিভৃত রাখার কারণ কি?

 

মাহবুব শাহ্ : একবাক্যে বলি আমি তো ভালা না! আসলে এগুলো একটা হৃদয় ঘটিত ব্যাপার, আগেও আমার গান অনেকেই গেয়েছে কিন্তু কেউ আমার কথা ভাবেনি, তাই আমিও তেমনটি আর কিছু ভাবি নি। বলতে গেলে একরকম সুযোগ ও হয়ে উঠেনি।

 

বার্তাজগৎ২৪ডটকম : আসলে সবাই যেন সৃষ্টিকে ভালোবাসে স্রষ্টাকে নয়, গানটা লিখেছে মাহবুব শাহ, মানুষ গানটা কে গ্রহণ করলো মাহবুব শাহ্কে না, মাহবুব শাহ্কে কেউ খুঁজছেনা?

 

মাহবুব শাহ্ : সে জন্য আপনাকে ধন্যবাদ, দেশে এত মিডিয়া থাকতে একমাত্র আপনারা আমাকে খুঁজে বের করে আমার খবর নিয়েছেন, তাই আমি আপনাদের অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই। আমি আপনার কাছে কৃতজ্ঞ। এই গানটি লিখেছি সুর করেছি আমি নিজে, আমি আপনার নিউজ পোর্টালের প্রতিও কৃতজ্ঞ।

 

বার্তাজগৎ২৪ডটকম : আপনি কি ভিউয়ার্সদের উদ্দেশ্য কিছু বলবেন?

 

মাহবুব শাহ্ : ভিউয়ার্স দের উদ্দেশ্যে বলতে চাই,আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন, যেন আপনাদের মনের জন্য, মনের শান্তির জন্য আরো সুন্দর সুন্দর গান লিখতে পারি।

 

বার্তাজগৎ২৪ডটকম : আপনার মূল্যবান সময় আমাদের দেওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

মাহবুব শাহ্ : আপনাকেও ধন্যবাদ।

Share on: