চট্টগ্রামে ছুরিকাঘাতে কার চালকের মৃত্যুর ঘটনায় গ্রেপ্তার ৫

দিদারুল ইসলাম:

প্রকাশিতঃ ৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ সময়ঃ রাত ১ঃ৫৮
চট্টগ্রামে ছুরিকাঘাতে কার চালকের মৃত্যুর ঘটনায় গ্রেপ্তার ৫
চট্টগ্রামে ছুরিকাঘাতে কার চালকের মৃত্যুর ঘটনায় গ্রেপ্তার ৫

দিদারুল ইসলাম:


বন্দরনগরী চট্টগ্রামে ঢাকা থেকে বেড়াতে এসেছিলেন প্রাইভেটকার চালক আইয়ুব আলী। ৪ সেপ্টেম্বর রাতে রিকশা করে যাওয়ার পথে নগরীর আগ্রাবাদ চৌমুহনী এলাকায় ছিনতাইকারীর কবলে পড়েন তিনি।

সেদিন চলার পথে হঠাৎ আইয়ুব আলীকে বহনকারী রিকশা থামিয়ে তার ব্যাগটি ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে ছিনতাইকারী দলের সদস্যরা।

ছিনতাইয়ের সময় ব্যাগ নিয়ে টানাটানি করায় আইয়ুব আলীকে উপুর্যুপুরি ছুরিকাঘাত করে ছিনতাইকারীরা।এক পর্যায়ে আইয়ুব আলীর ব্যাগ, মানি ব্যাগ ও মোবাইল ফোন নিয়ে যায় তারা। এ সময় রিকশাচালক চুপচাপ ঘটনা দেখেন। ছিনতাইয়ের সময় সড়কে গাড়ি চলাচল করলেও কারো নজরে পড়েনি ছিনতাইয়ের ঘটনা।

সেদিনকার ছুরিকাঘাতে আহত আইয়ুব আলী অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে মারা যান। ঘটনার পরপর দীর্ঘসময় আইয়ুব আলীর পরিচয় শনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ। পরবর্তীতে তার পরিচয় শনাক্ত হয়। এ ঘটনায় ডবলমুরিং থানায় মামলা দায়ের হয়।

কোনো প্রকার ক্লু বিহীন এ মামলা তদন্ত করতে গিয়ে টানা তিনদিনের চেষ্টায় পাঁচজনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে ডবলমুরিং থানা পুলিশ। গ্রেফতার পাঁচজনই দুর্ধর্ষ ছিনতাইকারী।

গ্রেফতারকৃত পাঁচ ছিনতাইকারী সদস্যরা হলো- পটুয়াখালী জেলার দুমকি থানাধীন আংগারিয়া এলাকার মো. রফিকের ছেলে মো. আল আমিন (২২), চট্টগ্রাম সদরঘাট থানাধীন পূর্ব মাদারবাড়ি এলাকার মো. ইউছুফের ছেলে মো. রাব্বী (২২), কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর থানাধীন মো. হানিফের ছেলে মো. সোহেল (২৫), কুমিল্লা জেলার তিতাস থানাধীন রঘুনাথপুর এলাকার মো. আবুল হোসেনের ছেলে মো. বাবু প্রকাশ ছোট বাবু প্রকাশ শাকিল (২০) ও লক্ষ্মীপুর জেলার সদর থানাধীন পেয়ারাপুর এলাকার মো. আবুল কালামের ছেলে মো. কামাল হোসেন প্রকাশ রনি (২০)।  তারা সবাই সদরঘাট এলাকায় বসবাস করেন।

মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ডবলমুরিং থানায় ব্রিফিংয়ে ছিনতাইকারীদের গ্রেফতারের বিষয়টি জানান চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) উপ-কমিশনার (পশ্চিম) ফারুক উল হক।

উপ-কমিশনার (পশ্চিম) ফারুক উল হক গণমাধ্যমকে জানান, গ্রেফতার পাঁচজন দুর্ধর্ষ ছিনতাইকারী। তারা চট্টগ্রাম নগরের বিভিন্ন এলাকায় ছিনতাইয়ের সঙ্গে জড়িত। প্রাইভেটকার চালক আইয়ুব আলীর কাছ থেকে ছিনতাই করতে গিয়ে তাকে ছুরিকাঘাত করেছিল তারা। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে পরে মারা যান প্রাইভেটকার চালক আইয়ুব আলী।


বার্তাজগৎ২৪/ এম এ

Share on: