ছাত্রলীগ কর্মী থেকে বিশ্বনেত্রী

ফারমিন মৌলী

প্রকাশিতঃ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ সময়ঃ রাত ৯ঃ০৯
ছাত্রলীগ কর্মী থেকে বিশ্বনেত্রী
ছাত্রলীগ কর্মী থেকে বিশ্বনেত্রী

 

তখন পাকিস্তানের স্বৈরশাসক ক্ষমতায়, দেশে অরাজগতা বিরাজমান। বাংলাদেশের মানুষের রক্ত ঘামে তৈরি হচ্ছে পশ্চিম পাকিস্তানের সভ্যতা। তখনকার দিনে একজন মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ের জন্য ছাত্র রাজনীতি করা ছিল দুরুহ ব্যপার। সেই আমলেই তিনি সরকারি ইন্টারমিডিয়েট গার্লস কলেজের ছাত্র সংসদের সহ সভাপতি (ভিপি) ছিলেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের একজন সদস্য এবং ছাত্রলীগের রোকেয়া হল শাখার সাধারণ সম্পাদক থেকে আজ তিনি বিশ্বনেত্রী।

রাজনীতি, আন্দোলন সংগ্রামের সাথে জড়িত থাকলেও কখনই তার প্রাতিষ্ঠানিক লেখাপড়ায় বাধ সাধেনি। মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক শেষে ১৯৭৩ সালেও ১ম শ্রেণী নিয়ে স্নাতক সম্পন্ন করেন।

যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টন ইউনিভার্সিটি, জাপানের ওয়াসেদা ইউনিভার্সিটি ইউনিভার্সিটি অব লিবারটি এবং যুক্তরাজ্যের ডানডি ইউনিভার্সিটি ১৯৯৭ সালে তাকে ‘ফিলসফি ইন লিবারেল আর্টস’-এ সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রি প্রদান করে। ১৯৯১ সালের ২৮ জানুয়ারি পশ্চিমবঙ্গের ‘বিশ্ব ভারতী’ তাকে ‘দেশিকোত্তম’ সম্মানে ভূষিত করে। দেশ ও সমাজে শান্তি ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য তাঁর উল্লেখযোগ্য অবদানের কারণে অস্ট্রেলিয়ার ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ১৯৯৯ সালের ২০ অক্টোবর ডক্টর অব ল’ডিগ্রি প্রদান করে। শান্তি, গণতন্ত্র ও মানবাধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য তাঁর অসাধারণ অবদানের জন্য ব্রাসেলসের বিশ্ববিখ্যাত ক্যাথলিক ইউনিভার্সিটি তাকে ২০০০ সালে ৪ঠা ফেব্রুয়ারি সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রি প্রদান করেন। ২০০০ সালে ৫ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের ব্রিজপোর্ট ইউনিভার্সিটি  মানবাধিকার বিষয়ে সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রি প্রদান করে।

এইতো গেলো এক নারী শিক্ষাও বর্ণনা। এবার তার অর্জন সম্পর্কে একটু ধারণা নেয়া যাক।

পার্বত্য চট্রগ্রামে শান্তি প্রক্রিয়ায় তার উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্য ১৯৯৮ সালে ইউনেসকো তাকে “হফোয়েট-বোজনি” (Houphouet-Boigny) শান্তি পুরস্কারে ভূষিত করে।রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও মানবাধিকারের ক্ষেত্রে সাহসিকতা, ও দূরদর্শিতার জন্যও যুক্তরাষ্ট্রের রানডলপ ম্যাকন  উওমেনস কলেজ ২০০০ সালের ৯ এপ্রিলে মর্যাদাসূচক “Pearl S. Buck 99” পুরস্কারে ভূষিত করে। জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি তার ক্ষুধার বিরুদ্ধে আন্দোলনের অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ শেখ হাসিনাকে সম্মানজনক সেরেস্ (CERES) মেডেল প্রদান করে। সর্বভারতীয় শান্তিসংঘ তাকে ১৯৯৮ সালে ‘মাদার তেরেসা’ পদক প্রদান করে। বাংলাদেশে তৃণমূল পর্যায়ে ধর্মীয় সম্প্রীতি ও গণতন্ত্র প্রসারে তার অবদানের জন্য নরওয়ের অসলোতে অবস্থিত মহাত্মা মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধী ফাউন্ডেশন  ‘গান্ধী পদক’ প্রদান করে। ১৯৯৮ সালে আন্তর্জাতিক রোটারি ফাউন্ডেশন Paul Haris ফেলোশিপ প্রদান করে। আন্তর্জাতিক লায়নস ক্লাব তাকে ১৯৯৬-১৯৯৭ সালে ‘Medal of Distinction’ পদক ও ১৯৯৬ -৯৭ সালে ‘Head of State’ পদক প্রদান করে। এ ছাড়া, তিনি বৃটেনের গ্লোবাল ডাইভারসিটি পুরস্কার এবং দুই বার সাউথ সাউথ পুরস্কারে ভূষিত হন।

এতক্ষণ যে মানুষটির স্তুতি বর্ণনা করা হয়েছিল তিনি এক হতভাগ্য মানুষ। যার সাথে প্রতিবার করা হয়েছে অবিচা্র। নিজের মা, বাবা ভাই বোনসহ পরিবারের কোনো সদস্যের লাশটুকুর দেখার সুযোগ হয়নি তার। ১৯ বার পরিকল্পিত হত্যাচেষ্টা করার পরেও তিনি নিজ জৌলুসে তিনবারের প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন। তিনিই আমাদের শেখ হাসিনা।

শতবার হোঁচট খেয়েও তিনি আজ বাংলাদেশের সবচেয়ে ক্ষমতাবান রাজনীতিবিদ। গতিশীল উন্নয়নের মাধ্যমে যার হাত ধরে বদলে যাচ্ছে বাংলাদেশের দিগন্ত।

এক মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশকে তলাহীন ঝুঁড়ি বলে মন্তব্য করেছিলেন। সেই দিন আর নেই, একই দেশের মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডাব্লিউ মজিনা বাংলাদেশ ছাড়ার আগে বলে গিয়েছিলেন, বাংলাদেশ আর তলাহীন ঝুড়ি নয়, যিনি বলেছেন তিনি ভুল বলেছিলেন।

রাজনীতিবীদ হিসেবে পরিচিত হলেও মানবাধিকার ও লেখালেখি নিয়ে তার অবদান অনস্বীকার্য, তার উল্লেখযোগ্য কিছু বইয়ের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে- “ওরা টোকাই কেন?”, “বাংলাদেশে স্বৈরতন্ত্রের জন্ম”, “দারিদ্র্য বিমোচন, কিছু ভাবনা”, “আমার স্বপ্ন, আমার সংগ্রাম”, “আমরা জনগণের কথা বলতে এসেছি”, “সামরিকতন্ত্র বনাম গণতন্ত্র”।

সম্প্রতি রোহিঙ্গা ইস্যুতে তার উল্লেখযোগ্য অবদানের কারণে পশ্চিমা মিডিয়া তাকে, মাদার অব হিউম্যানিটি নামে উল্লেখ করেছেন।

মা-বাবা, ভাই বোন বিহীন এক পথচলে শেখ হাসিনা এসেছেন আজকের এই স্তরে। কেউ কী জানতো উচ্চ মাধ্যমিকে ছাত্রলীগের হাত ধরে রাজনীতি করা হাসু স্বাধীন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হবেন, আর্বিভূত হবেন বিশ্ব মানবতার বিবেক হিসেবে। তাই আমি মনে করি একজন ছাত্রলীগ কর্মী থেকে দেশরত্ন, বিশ্বনেত্রী হওয়া শেখ হাসিনা থেকে প্রতিটি ছাত্রলীগ কর্মী শিক্ষা নিতে পারে।পরিশেষে, আপার সুস্বাস্থ্য ও মঙ্গল কামনা করছি।

লেখক: সাবেক ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক, ঢাকা মহানগর ছাত্রলীগ (দক্ষিণ)

বার্তাজগত২৪/এইচএ

Share on: