জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে হেরে গেল বিসিবি একাদশ

দিদার, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

প্রকাশিতঃ ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ সময়ঃ সন্ধ্যা ৭ঃ৪১
জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে হেরে গেল বিসিবি একাদশ
জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে হেরে গেল বিসিবি একাদশ

দিদার, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটে একমাত্র টি-টোয়েন্টিতেই বাংলাদেশের সফলতা সবচেয়ে কম। আসন্ন ত্রিদেশীয় সিরিজকে সামনে রেখে একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়াম জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মাঠে নামে বিসিবি একাদশ। আফগানিস্তানের বিপক্ষে জাতীয় দলের ভরাডুবির পরে এই ম্যাচটিও জিততে পারেনি টাইগাররা। ১৬ বল হাতে রেখে ৭ উইকেটে জয় তুলে নিয়েছে সফরকারীরা। সেই সাথে এই জয়ের মধ্য দিয়ে মূল লড়াইয়ের আগেই প্রস্তুতিটা ভালোই সেরে নিল মাসাকাদজার অনুসারীরা।

প্রস্তুতি ম্যাচের শুরুতে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে বিসিবি একাদশ সংগ্রহ করে ১৪২ রান। টাইগারদের হয়ে দলে সর্বোচ্চ রান করেছেন বাংলাদেশের হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান সাব্বির রহমান। তিনি ৩১ বলে ৩০ রানের একটি ইনিংস খেলেন। যদিওবা সাব্বিরের এই ব্যাটিং মোটেও টি-টোয়েন্টি সুলভ ছিল না। শুরুতে ওপেনিং জুটিতে ভালোই স্কোর আসে বাংলাদেশের। দুই ওপেনার সাইফ হাসান ও মোহাম্মদ নাইমের জুটিতে ২৬ রান আসলে ১৯ বলে ২১ রানে বোল্ড হন সাইফ হাসান। এরপর ক্রিজে আসেন জাতীয় দলের তারকা ব্যাটসম্যান সাব্বির রহমান। উইকেটে থাকা নাইমকে সঙ্গে নিয়ে দলীয় রান ৫৩ তে নিতেই ফিরে যান নাইম ১৪ বলে ২৩ রান করার পরে। এরপরে উইকেটে আসেন জাতীয় দলের নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। সাব্বির-মুশি জুটিতে দলীয় রান যখন ১০৬ এ পৌঁছে তখন ৩১ বলে ৩০ করে আউট হন বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি স্পেশালিস্ট খ্যাত তারকা ব্যাটসম্যান সাব্বির রহমান।

সাব্বির মাঠ ছাড়তে না ছাড়তে এর পরপরই ফিরে যান মুশফিক। তিনি জাতীয় দলের অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান হয়েও মাত্র ২৬ বলে ২৬ রান করতে সক্ষম হন। শেষের দিকে আফিফ হোসেন, আরিফুল ইসলাম ও সাইফ সহ মিলে কোনরকমে টেনেটুনে দলীয় রান ১০৭ থেকে ১৪২ এ নিয়ে যেতে সক্ষম হয়। তারমধ্যে সাইফ ৭ রানে অপরাজিত ছিলেন।

বিসিবি একাদশের দেয়া ১৪৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে জিম্বাবুয়ের ওপেনিং জুটিতে আসে ৪২ রান। অধিনায়ক হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ২৩ বলে ৩১ রান করে ফিরলেও ওপেনিংয়ে থাকা ব্রেন্ডন টেইলর দলের হাল ধরেন। এরই মধ্যে দ্বিতীয় ও তৃতীয় উইকেটে ক্রেইগ আরভিন ও শন উইলিয়ামস তেমন কিছু করতে না পারলেও চতুর্থ উইকেট জুটিতে টিমাইসেন মারুমাকে সঙ্গে নিয়ে ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন জিম্বাবুয়ে অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান টেইলর।

শেষ পর্যন্ত ৪৪ বলে ৫৭ রানের একটি অপরাজিত ইনিংস খেলেন টেইলর অপরদিকে ২৮ বলে ৪৮ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলে মারুমাও অপরাজিত থেকে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছানোর পাশাপাশি নিজের টি-টোয়েন্টি প্রস্তুতিপর্ব টাও সেরে ফেলেন। একে একে ৬ জন বোলারের ব্যবহার করলেও বিসিবি একাদশের হয়ে কেবল মাত্র আফিফ হোসেনের ৩টি উইকেট ছাড়া আর কেউ কোন উইকেট শিকার করতে পারেনি।

এদিকে প্রস্তুতি ম্যাচেরও পরাজয়ের খবর পেয়ে টাইগার ভক্তদের মধ্যে চরম হতাশা দেখা দিয়েছে। যদিওবা বিসিবি একাদশের হয়ে অংশগ্রহণ করা স্কোয়াডে জাতীয় দলে অধিকাংশ খেলোয়াড়েরাই ছিলেন অনুপস্থিত। ত্রিদেশীয় সিরিজে অংশ নেওয়া আরেকদল আফগানিস্তানের খেলোয়াড়েরাও টি-টোয়েন্টিতে অনেক বেশি অভিজ্ঞ। এখন টাইগার বাহিনী চূড়ান্ত পর্বে কেমন পারফর্ম করে সেটাই দেখার পালা।

বার্তা‌জগৎ২৪.কম/এফ এইচ পি