জীবন যুদ্ধে আমাদের অনুপ্রেরণা হতে পারে 'বার্নাকল হাঁস'

বার্তা‌জগৎ২৪ ডেস্কঃ

প্রকাশিতঃ ১৯ অগাস্ট ২০১৯ সময়ঃ রাত ১০ঃ৩৬
জীবন যুদ্ধে আমাদের অনুপ্রেরণা হতে পারে 'বার্নাকল হাঁস'
জীবন যুদ্ধে আমাদের অনুপ্রেরণা হতে পারে 'বার্নাকল হাঁস'

মো.ফজলুল হক পাভেলঃ

বার্নাকল হাঁস পৃথিবীর সবচেয়ে পরিশ্রমী পাখি গুলোর একটি। জন্মের পরপরই এরা কঠিন জীবন যুদ্ধের মুখোমুখি হয়। ভূমি থেকে প্রায় ৪০০ মিটার উপরে বাস করে। পরিযায়ী পাখি হওয়ায় শুধুমাত্র বংশবৃদ্ধির জন্য এরা পাহাড়ে আশ্রয় নেয়। এত উপরে বাসা বাঁধার প্রধান কারণ হলো শিকারি প্রাণি থেকে ডিম গুলো রক্ষা করা। বাবা মার মত হংস শিশুদেরও একমাত্র খাবার ঘাস।

কিন্তু ঘাস রয়েছে ওই নদীর কিনারায়। বেঁচে থাকতে হলে হংস শিশুদের সেখানে পৌঁছাতে হবে।মা হাঁসটি প্রথমে মাটির নিচে নেমে বাচ্চাদের দেখে উৎসাহিত করতে থাকে। এরপর বাচ্চাগুলো সরাসরি নিচে লাফিয়ে পড়ে। বাচ্চাগুলো শরীর চওড়াভাবে বাতাসে মেলে ধরে এবং ছোট্ট পাখাগুলি প্রসারিত করে।

প্রথম স্পর্শ টা যদি পেট হয় তবে কোনো ঝুঁকি নেই কিন্তু মাথা হলে হতে পারে মহাবিপদ। এই বাচ্চাগুলি কোন রকমে বেঁচে যায় আহত হয়েও। কিন্তু নিচে রয়েছে আরেক বিপদ। পাহাড়ের গায়ে ছোট ছোট ধাক্কা বাচ্চাটির গতি অনেকটাই কমিয়ে দেয় যা তাকে নিরাপদে পৌঁছানোর জন্য জরুরী। 

সবকিছুই দেখছে মা, কিন্তু তার এখানে কিছুই করার নেই। শিকারি প্রাণির হাত থেকে বাঁচানোর জন্য মা খেয়াল করছে। সৌভাগ্যক্রমে বাচ্চাগুলো তুষারের উপর পড়ে। আবার কতগুলো পাথরে পড়ে মারা যায়। যদি খাড়াভাবে পড়ে তবে মারা যাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল কিন্তু ভালোভাবে পড়লে বেঁচে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

অবশেষে বাচ্চাগুলো সুস্থভাবে তাদের যাত্রা শুরু করে। বাচ্চাগুলো চরম ভাবে আহত হওয়া সত্ত্বেও শেষ পর্যন্ত মায়ের ডাকে সাড়া দিতে পারে। আপনি যদি নিষ্পাপ হন, পৃথিবীর কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হওয়া অতি সাধারণ বিষয়। টিকে থাকার জন্য সকলকে অতি কঠিন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে হয়। জীবন কোন ফুলশয্যা নয়। তাইতো কবি বলেছিলেন লাইফ ইজ নট এ বেড অব রোজেস। 

আমরা আমাদের বাস্তব জীবনে প্রতিনিয়ত আমাদের প্রত্যাশা অনুযায়ী প্রাপ্তির ঝুড়ি ভর্তি করতে না পারলেই হতাশ হয়ে যাই। হাল ধরলেও খেই হারিয়ে ফেলি। আমাদের চারপাশেই এমন অনেক উদাহরণ আছে যেগুলো আমাদের মনে আশা জাগায়, বেঁচে থাকতে অনুপ্রেরণা যোগায়।

আমাদের সুখী হতে হলে কঠিন পরিস্থিতি যেমন পার করতে হবে ঠিক তেমনি হতাশ না হয়ে হাল ধরতে হবে শক্তভাবে। বার্নাকল হাঁস থেকে আমাদের অনুপ্রাণিত হওয়ারও অনেক কিছু আছে।তাই হাল ছাড়বেন না। লেগে থাকুন।

বার্তাজগৎ২৪/এফ এইচ পি