দক্ষিণ চট্টগ্রামের মইজ্জারটেক এলাকায় সিএনজি চালকদের ভাড়া নৈরাজ্য

বার্তা‌জগৎ২৪ ডেস্কঃ

প্রকাশিতঃ ১৮ অগাস্ট ২০১৯ সময়ঃ সন্ধ্যা ৬ঃ৩১
দক্ষিণ চট্টগ্রামের মইজ্জারটেক এলাকায় সিএনজি চালকদের ভাড়া নৈরাজ্য
দক্ষিণ চট্টগ্রামের মইজ্জারটেক এলাকায় সিএনজি চালকদের ভাড়া নৈরাজ্য


দিদার, বিশেষ প্রতিনিধি:

বন্দরনগরী চট্টগ্রামের প্রবেশ পথ হিসেবে পরিচিত শাহ আমানত সেতুর দক্ষিণ পাশে মইজ্জারটেক থেকে সিএনজি করে চট্টগ্রাম শহরের যে কোন এলাকায় আসতে চাইলে ৫০০ থেকে ১০০০ টাকা ভাড়া দাবি করছে সিএনজি চালকেরা!

ঈদের ছুটি কাটিয়ে সর্বস্তরের মানুষ গতকাল থেকে শহরমুখী হয়ে ফিরতে শুরু করেছে এই সুযোগটা কাজে লাগিয়ে ঔৎ পেতে বসে আছে সিএনজি মালিক সমিতি নামক সিন্ডিকেট এক ধরনের চালকেরা।

অন্যান্য সময় যেখানে স্বাভাবিক ভাড়া ২০০ থেকে ২৫০ টাকা সেখানে তারা ভাড়া আদায় করছে তার চেয়ে আরো দ্বিগুণ থেকে তিনগুণ বেশি! বাস-টেম্পু কিংবা অন্যান্য মাধ্যমে শহরে প্রবেশ করার জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ যান চলাচলের ব্যবস্থা নেই। এতে করে দূর্ভোগে পড়েছে দক্ষিণ চট্টগ্রামের হাজার হাজার মানুষ।

আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা জনগণের বন্ধু হয়েও এক শ্রেণীর অসাধু সিএনজি চালক এবং তাদের সমিতির অধীনে কাজ করছে।

পুলিশের নাকের ডগায় অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করলেও সে ক্ষেত্রে কারো দৃষ্টি আকর্ষন নেই! প্রতিবছর ঈদ আসলে ভাড়া নৈরাজ্য প্রতিহত করতে ম্যাজিস্ট্রেট নামানো হলেও তাহা মাত্র কয়েক ঘণ্টা স্থায়ী থাকে এরপরে আবারো শুরু হয় ভাড়া নৈরাজ্য। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে প্রতিটি সিএনজি চালককে মইজ্জারটেক এলাকায় স্থানীয় সিন্ডিকেট সমিতি ও পুলিশকে প্রতিটি ভাড়া ঠিক করে যাত্রী উড়ালে ৫০ থেকে ১০০ টাকা করে দিয়ে আসতে হয়।

সিএনজি চালকদের অভিযোগ ব্রিজের টোল আদায় সহ সিন্ডিকেট সমিতির লোকজনকে টাকা দিতে গিয়ে যাত্রীদের কাছ থেকে নেওয়া তাদের অতিরিক্ত টাকা চলে যায়। সে জন্য এক প্রকার বাধ্য তারা সাধারণ জনগণের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে।

বার্তাজগৎ২৪/এম এ/এফ এইচ পি