বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানাতে চেয়েছিলো তারেক রহমান: শোভন

বার্তা‌জগৎ২৪ ডেস্কঃ

প্রকাশিতঃ ১৮ অগাস্ট ২০১৯ সময়ঃ সকাল ১১ঃ৪২
বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানাতে চেয়েছিলো তারেক রহমান: শোভন
বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানাতে চেয়েছিলো তারেক রহমান: শোভন

 

বার্তাজগৎ২৪ ডেস্কঃ

'বাংলাদেশকে পাকিস্তানী ভাবধারায় ফেরাতে চেয়েছিলো বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান' এমন মন্তব্য করেছেন ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন।

ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর নেতৃত্বে ২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট ঘটে যাওয়া সিরিজ বোমা হামলার বিচার ও জঙ্গিবাদের পৃষ্টপোষকদের মূলোৎপাটনের দাবিতে মৌন মিছিল ও কালো পতাকা প্রদর্শন কর্মসূচিতে অংশ নেয় সংগঠনটির কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ শাখার নেতাকর্মীরা।

তিনি বলেন, ১৯৭১-এ ইয়াহিয়া ভুট্টো যেমন দেশের জনগণ নয় বরং ক্ষমতা চেয়েছিল, তেমনি স্বাধীন দেশে তারেক রহমানও দেশের জনগণকে চায়নি বরং তার চাওয়া ছিল দেশকে পাকিস্তান বানানো। এজন্যে ক্ষমতা ও মাটি দখল নিতে সে ১৭ আগস্ট সারাদেশে সিরিজ বোমা হামলা করিয়েছিল।

২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট ঘটে যাওয়া সিরিজ বোমা হামলার বিচার ও জঙ্গিবাদের পৃষ্টপোষকদের মূলোৎপাটনের দাবিতে গত শনিবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মৌন মিছিল ও কালো পতাকা প্রদর্শন কর্মসূচি পালন শেষে রাজু ভাস্কর্যে গিয়ে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে একথা বলেন তিনি।

ছাত্রলীগ সভাপতি বলেন, বিএনপি দেশকে পাকিস্তানের কায়দায় পরিচালিত করতে চেয়েছিল। বাংলাদেশের জম্নলগ্ন থেকে জামাতে ইসলামসহ যেসব গোষ্ঠী দেশকে মেনে নিতে পারেনি তাদেরকে পৃষ্ঠপোষকতা করার মধ্য দিয়ে এমন অরাজক পরিস্থিতি তৈরি করার পথ করে দিয়েছিল বিএনপি।

তিনি বলেন, জিয়া বাংলাদেশকে ইসলামিক রিপাবলিক করতে চেয়েছিল, কিন্তু জনগণের প্রতিরোধের কারণে সে ব্যর্থ হয়, এরপর একই কাজ করেছে তার স্ত্রী খালেদা জিয়া। জিয়া পরিবারের কেউই বাংলাদেশের রাষ্ট্রব্যবস্থায় বিশ্বাস করত না। এজন্যেই তারেক রহমান এসব গোষ্ঠীকে মদদ দিত। তার পৃষ্ঠপোষকতায় বাংলা ভাই প্রকাশ্যে অস্ত্রসহ ঘুরে বেড়াতো।

১৭ আগস্ট সিরিজ বোমা হামলার পথ করে দিয়ে বাংলাদেশকে তারা পাকিস্তানের ফেডারেল রাষ্ট্রে পরিণত করতে চেয়েছিল। শোভন আরো বলেন, শেখ হাসিনা না থাকলে হয়ত সেই চিন্তা বাস্তবায়ন করে ফেলত ওই গোষ্ঠী। কিন্তু দেশের জনগণ তারেক রহমানের সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে দেয় নি।

ছাত্রলীগের সভাপতি বলেন, ২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট বিএনপি-জামায়াত সরকারের প্রত্যক্ষ মদদে জঙ্গিবাদের উত্থানের নগ্ন প্রদর্শনী হয়। সেদিন দেশব্যাপী একযোগে ৫০০ স্থানে সিরিজ বোমা হামলা করে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের ভাবমূর্তিক্ষুণ্ন করা হয়। এই হামলাকারীদের বিচার ও জঙ্গিবাদের পৃষ্টপোষকদের মূলোৎপাটন করতে হবে।

বার্তা‌জগৎ২৪.কম/এফ এইচ পি