রমজান আসার আগেই বাড়ছে সবজির দাম!

বার্তা জগৎ ডেস্ক:

প্রকাশিতঃ ২৭ এপ্রিল ২০১৯ সময়ঃ ভোর ৫ঃ২৪
রমজান আসার আগেই বাড়ছে সবজির দাম!
রমজান আসার আগেই বাড়ছে সবজির দাম!

 

বার্তা জগৎ২৪ ডেস্কঃ

সারাদেশের ব্যবসায়ীরা যেন প্রতিবছর এই রমজান মাসটার জন্যই অপেক্ষা করেন। কেননা রমজান মাস আসলেই যেন দেশের কাঁচাবাজার গুলোতে আগুন লাগে। অসাম্যভাবে বেড়ে যায় নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম। এই রমজান মাসকে সামনে রেখে রাজধানীর বাজারগুলোতে আগের তুলনায় বেড়েছে পেঁপে ও পেঁয়াজ ও আলুর দাম। পেঁপে, পেঁয়াজ ও আলুর দাম কেজিপ্রতি ২ থেকে ২০ টাকা পর্যন্ত বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে সপ্তাহ ব্যবধানে কিছুটা কমেছে সব ধরনের ডিমের দাম।

বিক্রেতাদের দাবি জানান, গত সপ্তাহে কয়েকদিনের শিলাবৃষ্টিতে প্রচুর সবজি নষ্ট হয়েছে। তাই সরবরাহ কমায় দাম বেড়েছে। অথচ বাজারের ক্রেতাদের অভিযোগ ভিন্ন। তাদের অভিযোগ রমজান মাসকে সামনে রেখে একটা সিন্ডিকেট করে পেঁপে, আলু ও পেঁয়াজের দাম বাড়িয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

গতকাল (২৬ এপ্রিল) শুক্রবার রাজধানীর মহাখালী, শ্যামবাজার ও সেগুণবাগিচা কাঁচাবাজারসহ কয়েকটি বাজার ঘুরে ক্রেতা ও বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।

বাজারগুলোতে দেখা যায়, আগের তুলনায় পেঁপে, আলু ও পেঁয়াজের সবজির দাম বাড়লে শাক-সবজি, মাছ-মাংস আগের মতোই চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে। সপ্তাহের ব্যবধানে কিছুটা কমেছে ডিমের দাম। এছাড়া দীর্ঘ দিন ধরে অপরিবর্তিত থাকা মুদি পণ্যের মধ্যে গত সপ্তাহে বেড়েছে চিনির দাম।  প্রতি কেজি চিনি দাম ২ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৫২ থেকে ৫৪ টাকায়। তবে সবজি, মাছ ও মাংসের চড়া দামে অস্বস্তিতে রয়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষেরা।

বাজারে মানভেদে দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৩৪ টাকা কেজি দরে। যা গত সপ্তাহে ছিলো ২৫ থেকে ৩০ টাকা। আর প্রতিকেজি আলুর বিক্রি হচ্ছে ২০ থেকে ২২ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিলো ১৫ টাকা। অর্থাৎ খুচরা বাজারে আলুর দাম কেজিতে বেড়েছে সাত টাকা পর্যন্ত। আর বাজার ও মানভেদে কাঁচা পেঁপে কেজিপ্রতি বিক্রি হচ্ছে ৪০-৬০ টাকায়। যা গত সপ্তাহে ছিলো ৩৫ থেকে ৪০ টাকা। সে হিসাবে কেজিপ্রতি পেঁপের দাম বেড়েছে সর্বোচ্চ ২০ টাকা।

রমজান মাসে বাজার ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে গণমাধ্যমকে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, 'রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে ও চাঁদাবাজি বন্ধে সরকার কঠোর অবস্থানে রয়েছে। কোনো অযুহাতেই রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়তে দেওয়া হবে না। বাজার মনিটরিং চলছে। এছাড়া সড়কে চাঁদাবাজি বন্ধে সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলোকে চিঠি দেওয়া হবে। বাজারে চাহিদার তুলনার অনেক বেশি পণ্য মজুত রয়েছে।'

এদিকে, আগের মতোই চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে সব ধরনের সবজি। ৫০ থেকে ৬০ টাকার নিচে মিলছে না কোনো সবজি। 

বার্তা জগৎ২৪/ এম এ

Share on: