সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদকের পদ হারাতে পারেন কাদের

বার্তাজগৎ২৪ ডেস্কঃ

প্রকাশিতঃ ১৮ অক্টোবর ২০১৯ সময়ঃ রাত ৮ঃ০১
সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদকের পদ হারাতে পারেন কাদের
সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদকের পদ হারাতে পারেন কাদের

বার্তাজগৎ২৪ ডেস্কঃ

আগামী ২০ ও ২১ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের ২১ তম জাতীয় সম্মেলন। ইতোমধ্যেই সম্মেলনের সব প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। আলোচনা চলছে আলোচিত সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে।

অনেকেই মনে করছেন বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে সরিয়ে দেয়া হবে পদ থেকে। আসবে নতুন কেউ। বিষয়টি নিয়ে দলের শীর্ষ নেতৃবৃন্দও কথা বলছেন।

আসন্ন সম্মেলনে শারিরীক অবস্থা বিবেচনায় ওবায়দুল কাদেরকে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে অব্যাহতি দিতে পারেন দলীয় সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

দলটির ২০ তম জাতীয় সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন ওবায়দুল কাদের। এর আগে এ পদে ছিলেন সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। জীবনের শেষ দিকে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে এ পদে অন্যজনকে বিবেচনা করা হয়। অনেকেই আলোচনায় থাকলেও শেষ পর্যন্ত ওবায়দুল কাদেরকে বেছে নেন সভানেত্রী।

সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম চলতি বছরের ৩ জানুয়ারি মৃত্যুবরণ করেন। চলতি বছরের মার্চেই ওবায়দুল কাদেরও স্টোক করলে বাঁচার সম্ভাবনাই ছিল না। শেষ পর্যন্ত সিঙ্গাপুরের ১ মাস চিকিৎসাধীন থাকার পর সুস্থ হন তিনি।

গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ায় আগামী সম্মেলনে তিনি সাধারণ সম্পাদক পদে আসতে পারবেন কিনা এ নিয়ে সন্দিহান দলের শীর্ষ অনেক নেতা।

এ বিষয়ে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ইন্ডিপেন্ডেন্ট টিভিকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফরুল্লাহ বলেন, শেখ হাসিনা এখন থেকেই দলের জন্য প্লানিং শুরু করেছেন, আগামী পাঁচ-দশ বছর পর কারা দলের নেতৃত্ব দেবে। এভাবে তিনি যুগোপযোগী সিদ্ধান্তে তিনি যাবেন।

তিনি বলেন, নতুনদের জায়গা করে দিতে তো পুরনোদের কাউকে কাউকে জায়গা ছেড়ে দিতে হবে। এটা শিউরলি হবে।

সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে তিনি বলেন, সেক্রেটারি হিসেবে আমাদের ওবায়দুল কাদের সাহেব আছেন। গত মার্চে তিনি মারাত্মক হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত হন। প্রধানমন্ত্রী যদি মনে করেন তার জন্য এ দায়িত্ব চাপ হবে তাহলে নতুন নেতৃত্ব আসবে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী সব সময় মানবিক দিক বিবেচনা করেন। কারো উপর চাপ হোক তা তিনি কখনোই চান না। তাই সাধারণ সম্পাদক পদে পরিবর্তন আসতে পারে।

তবে দলের সভাপতি পদ নিয়ে আপাতত কোনো আলোচনা নেই। এটা নিশ্চিত সভাপতি হিসেবে দলের বর্তমান সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই থাকছেন। টানা আট বার তিনি এ পদে থেকে দলকে সফলভাবে নেতৃত্ব দিচ্ছেন।


বার্তাজগৎ২৪/এসএইচ

Share on: