ঢাকা, বুধবার, ৬ মাঘ ১৪২৭, ২০ জানুয়ারী, ২০২১

Facebook Twitter Instagram Linkedin Youtube

Logo

জাফরুল্লাহ ভ্যাকসিন নিয়ে প্রতারণার শিকার বাংলাদেশ

বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক:
প্রকাশিত: সোমবার, ০৪ জানুয়ারী, ২০২১, ০৪:২০
ভ্যাকসিন নিয়ে প্রতারণার শিকার বাংলাদেশ

সবকিছু ঠিকঠাক এগুচ্ছিল। বাংলাদেশের বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের সঙ্গে চুক্তি হয় ভারতের ওষুধ উৎপাদনকারী কোম্পানি সিরাম ইনস্টিটিউটের। চুক্তি মোতাবেক চলতি জানুয়ারিতেই ভ্যাকসিন পাওয়ার আশার কথা শুনিয়েছিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। কিন্তু হঠাৎ বেঁকে বসে ভারত সরকার। এ নিয়ে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশ প্রতারণার শিকার হয়েছে।

আজ (সোমবার) দিনভর চলে এ নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা। নড়েচড়ে বসে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। উদ্বেগ তৈরি হয় সাধারণ মানুষের মধ্যেও। এমতাবস্থায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেছেন, নিষেধাজ্ঞার খবর শোনার পর আমাদের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঢাকায় তাদের (ভারত) হাইকমিশন এবং ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ করেছে।

চুক্তি ব্যাহত হবে না বলে আশ্বস্ত করেছে ভারত।

সংবাদ সম্মেলনে জাহিদ মালেক আরো বলেন, ভারত সরকার তাদের দেশে এমার্জেন্সি ভিত্তিতে ভ্যাকসিন প্রয়োগ করবে। আমরা শুনেছি, এ জন্য তারা আপাতত বিক্রি বন্ধ রাখবে। এর পরপরই আমরা বিষয়টি নিয়ে আলাপ করেছি। আলোচনা অব্যাহত থাকবে।আমাদের ভালো সম্পর্ক রয়েছে ভারতের সঙ্গে। আশাকরি এ নিয়ে কোনো সমস্যা হবে না।

চুক্তি অনুযায়ী, সিরাম ইনস্টিটিউটের কাছ থেকে ৩ কোটি ভ্যাকসিন আমদানি করার কথা বাংলাদেশের। প্রতি মাসে ৫০ লাখ ডোজ করে ৬ মাসের মধ্যে এই ভ্যাকসিন আনার কথা ছিল।

বার্তাজগৎ২৪ / এম এ

আরো পড়ুন:

মায়ের পরিচয়ে বেড়ে উঠবে ধর্ষণে জন্ম নেওয়া সন্তান

বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণ স্মরণে কলকাতায় বিশেষ আয়োজন

রাজধানীর খালে মিলল ২০ হাজার টন বর্জ্য

সমাজে মানুষের শান্তি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে- সংসদে রাষ্ট্রপতি

স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে আনুষ্ঠানিক ক্ষমা চাইতে পারে পাকিস্তান!



দ্রুততম সময়ে এইচএসসির ফল প্রকাশে সংসদে বিল উত্থাপন

বার্তা জগৎ ডেস্ক
প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী, ২০২১, ০১:৪৩
জাতীয় সংসদ
ফাইল ফটো

করোনা মহামারীর কারণে আটকে থাকা গেলও বছরের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল দ্রুততম সময়ের মধ্যে প্রকাশ করতে তিনটি পৃথক বিল উত্থাপন করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। 

আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকেকে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশন শুরু হয়। শুরুতেই ইন্টারমিডিয়েট এন্ড সেকেন্ডারি এডুকেশন অর্ডিন্যান্স ১৯৯৬ এর অধিকতর সংশোধনের জন্য ‘ইন্টারমিডিয়েট এন্ড সেকেন্ডারি এডুকেশন সংশোধন বিল-২০২১' উত্থাপন করেন শিক্ষামন্ত্রী।

সংসদে উত্থাপিত এই বিলের বিরোধীতা করেছেন জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য ফখরুল ইমাম। আনিত বিলটি সংবিধানের সাথে সাংঘর্ষিক কি না তা নিয়ে বিরোধী দলীয় এমপি প্রশ্ন তুলেছেন।

বিলের বিরোধীতা করে বিরোধী দলীয় সাংসদ বলেন, সংবিধানের ১৭ (ক) ধরায় বলা আছে ‘একই পদ্ধতির গণমুখী ও সার্বজনীন শিক্ষাব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার জন্য এবং আইনের দ্বারা নির্ধারিত স্তর পর্যন্ত সকল বালক-বালিকাকে অবৈতনিক ও বাধ্যতামূলক শিক্ষাদান ।’ সেখানে শিক্ষাদানের জন্য ১২ বছর রাষ্ট্র দায়িত্ব নিয়েছে। এখন আপনি পরীক্ষা উঠায়াই দিবেন এটা সংবিধানের সাথে সাংঘর্ষিক হবে না? সংবিধানের ওই ধারায় পরীক্ষার কথা বলা আছে, পদ্ধতির কথাও বলা আছে পরীক্ষা ওঠানোর কথা নেই তাই এটা সংবিধানের সাথে সাংঘষিক কি না?

বিরোধী দলীয় এই এমপি আরো বলেন, এই বিলে কার্যপ্রণালী বিধির ৭৭ (ঙ) অনুসরণ না করায় সংসদ সদস্যদের অধিকার খর্ব করা হয়েছে। তিনি বলেন, এই বিলটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

আমি এ বিলের বিরুদ্ধে না। কিন্তু এখানে কার্যপ্রণালী বিধি অনুসারে যে কোন বিল ৩ দিন আগে পাওয়ার কথা ছিল আমার। কিন্তু আমি তা পাইনি। 

এই প্রশ্নের জবাবে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, এই বিলের গুরুত্ব আছে। তাই আমার অনুমতিতেই বিলটি এসেছে। এই তিনটি বিল আমাদের পাস করে দিতে হবে।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, এই বিল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কেননা, এইচএসসি ফলাফলের জন্য শিক্ষার্থী অভিভাবক সবাই অপেক্ষা করছে। আমাদের ফলাফলও প্রস্তুত আছে।

কিন্তু আইনের কারণে আমরা ফলাফল প্রকাশ করতে পারছিনা। আর এবার বৈশ্বিক মহামারীর কারণে পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হয়নি। তাই আমাদেরবে বিকল্প পদ্ধতিতে এ পরীক্ষার ফলাফল দিতে হচ্ছে। আর তাই আইনটি সংশোধনের প্রয়োজন পড়েছে।

মন্ত্রী আরও বলেন, বিলটি মন্ত্রিপরিষদে আনার পর বলেছিলাম যেহেতু ১৮ তারিখ সংসদ শুরু হলে দ্রুত উত্থাপনের চেষ্টা করব। যেদিন সংসদ বিলটি পাশ করবে (যদি সংসদ পাস করে) তারপর আমরা দ্রুততার সাথে ফলাফল দেব। 

সংসদীয় কমিটিতে বিল তিনটি অনুমোদন লাভ করা হলে, চলতি অধিবেশনেই বিল তিনটি পাস হবে। এরপরই এইচএসসি ফলাফল প্রকাশ করা হবে।


আরো পড়ুন:

প্রধানমন্ত্রীর পদক্ষেপে করোনায়ও স্বাভাবিক জীবনযাত্রা: স্পিকার

অর্থ আত্মসাতের মামলায় সাহেদের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দাখিল ১৬ ফেব্রুয়ারি

ভ্যাকসিন কিনতে ৪৩১৪ কোটি টাকা অনুমোদন । বার্তাজগৎ২৪

বিশ্বের ১০০ শক্তিশালী দেশের তালিকায় বাংলাদেশ

ইসির ভাতা ও খাবারের বিলই সাড়ে ৭ কোটি টাকা



সিংড়ায় ভূমিহীনদের মাঝে জমির দলিল হস্তান্তর । বার্তাজগৎ২৪

রাব্বানী খান: নাটোর
প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২১, ০৯:১২
সিংড়ায় ভূমিহীনদের মাঝে জমির দলিল হস্তান্তর
ফাইল ফটো

মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে সিংড়ার ৬০জন ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে গৃহ নির্মাণ করে দেয়া হচ্ছে।

 বৃহস্পতিবার দুপুরে ইউএনও’র কার্যালয়ে সেই ভূমিহীনদের মাঝে জমির দলিল হস্তান্তর করেন সিংড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এম.এম সামিরুল ইসলাম। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভ‚মি) মো. রকিবুল হাসান, সাব-রেজিষ্ট্রার মনিরুজ্জামান, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. আল আমিন সরকার প্রমূখ।

সিংড়ার ইউএনও এম.এম সামিরুল ইসলাম বলেন, মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে প্রতিটি ঘরহীন মানুষকে ঘর তৈরি করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বর্তমান সরকার। এরই ধারা বাহিকতায় সিংড়া উপজেলায় ‘ক’ শ্রেণীর ভূমিহীন যাদের জমিও নেই বাড়িও নেই এমন ৬০জন পরিবারকে জমি ও ঘর বরাদ্দ দেয়া হচ্ছে।



আরো পড়ুন:

একাদশ জাতীয় সংসদের অধিবেশন আজ বসছে

সহিংসতা ও নির্বাচন-একসাথে-হতে পারে না-মাহবুব তালুকদার

কুড়িগ্রামে ফেলানী হত্যার ১০, আজও বিচার পায়নি পরিবার!

সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী

চসিক নির্বাচনী প্রচারণায় আওয়ামী লীগের দু'গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ

স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফেব্রুয়ারিতে খুলছে স্কুল-কলেজ

সিঙ্গাপুরে সাবেক মালিকের বিরুদ্ধে বাংলাদেশি কর্মীর মামলা

ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষা উপকরণ বিতরণের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন

সমাজে মানুষের শান্তি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে- সংসদে রাষ্ট্রপতি

নিষ্ঠুর সকাল এতিম করলো ৩ বছরের আফরাকে

×
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

সবকিছু ঠিকঠাক এগুচ্ছিল। বাংলাদেশের বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের সঙ্গে চুক্তি হয় ভারতের ওষুধ উৎপাদনকারী কোম্পানি সিরাম ইনস্টিটিউটের। চুক্তি মোতাবেক চলতি জানুয়ারিতেই ভ্যাকসিন পাওয়ার আশার কথা শুনিয়েছিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। কিন্তু হঠাৎ বেঁকে বসে ভারত সরকার। এ নিয়ে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশ প্রতারণার শিকার